মঙ্গলবার, ০৪ অগাস্ট ২০২০, ০৮:১৬ অপরাহ্ন

তাহমিনা জাফর কল্পনা’র অনুগল্প: “বৃষ্টিবিলাস”

তাহমিনা জাফর কল্পনা’র অনুগল্প: “বৃষ্টিবিলাস”

তাহমিনা জাফর কল্পনা’র অনুগল্প: “বৃষ্টিবিলাস”

:এক কাপ চায়ের মধ্যে দুই ফোটা বৃষ্টি! দাও দাও? দেখো কেমন অমৃত লাগে।

এই বারান্দা দিয়ে আমার হাত বেরুতে চায় না উচু রেলিং তো, কিন্তু সামনের ভদ্রলোক যেই আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছেন তাকে নিরাশ করতে মন চাচ্ছে না। এক হাতে আমার গাড় নীল শাড়িটা উচু করে ধরে আরেক হাতে কাপটা বাড়িয়ে দিলাম রেলিং দিয়ে বাইরে।
এমন পাগলামো এই প্রথম বিধায় বৃষ্টির ফোঁটা বেশি পড়ে গেছে! মুখে নিয়ে দেখি চা আর চা নেই, পানসে হয়ে গেছে! আমার মুখের দিকে তাকিয়ে থাকা মানুষটা বললেন
:ঠান্ডা হয়ে গেছে!? (তার চেহারায় পরিষ্কার অপরাধবোধ)
: ব্যাপার না, আমি আবার চা করে আনছি (দ্রুত মাথা নেড়ে তার সামনে থেকে পালিয়ে বাচলাম)

সরকারি অফিসার, গুরুগম্ভীর ধাঁচের, এই বলেই মেজো খালা এরেঞ্জ ম্যারেজের প্রস্তাবটা এনেছিলেন। ইশ যদি মেজো খালাকে এই রাতের ১টা বাজে ফোন করে বলা যেতো এই যে ঘসেটি বেগম এই আপনার গুরুগম্ভীর পাত্র!?

এক কাপ ধোঁয়া ওঠা চা নিয়ে বারান্দায় ফিরে দেখি তিনি আমার জন্য চা না খেয়েই অপেক্ষা করছেন! এবার মুখে দেবার পর ঘোষণা করা হলো, তার চা ও এতক্ষণে হাপানী রোগীর মত হাত পা ছেড়ে দিয়েছে! চোখ কপালে তুলে বললাম
:এখন আমি আবার চা বানাবো??? আপনি কেন খেয়ে নিলেন না!?
: উহু আর বানাতে হবে না, তোমার এক কাপ চা ই আমরা দুজন ভাগ করে খাবো! এতে নাকি প্রেম বাড়ে! হা হা হা!

পুরো পৃথিবী ঘুম। চারপাশে কিছু জেদি ব্যাঙ আর একটা শালের নিচে একই কাপে চুমুক দিচ্ছি আমরা দুজন। এত বড় সরকারি কোয়ার্টারের কেউ জানতে পারলো না, এই বারান্দায় প্রেমের চাষ হচ্ছে।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 Lalsabujnews24.Com
Desing & Developed BY Kazi Jahir Uddin Titas::01713478536