শনিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০১:৩১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
হাস্যউজ্জ্বল ফোরাম (হাউফো)’র বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের শুভেচ্ছা বিনিময় সভা বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যানের সাথে শরীয়তপুর প্রিন্ট মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের ফু্লেল শুভেচ্ছা বিনিময় সাবমেরিন ক্যাবলে বিদ্যুতের আলোয় পদ্মার চরের ২০ হাজার পরিবার নড়িয়ার মৃধাকান্দি বেপারী বাড়ি জামে মসজিদে ওয়াজ মাহফিল শরীয়তপুরে সাবেক চেয়ারম্যান ইয়াকুব আলী হাওলাদারের ১৫তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত সাংবাদিকদের ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক হওয়া উচিত : প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান নড়িয়ার সেকান্দার আলম রিন্টু নিসচা’র কেন্দ্রীয় কার্যকারী সদস্য পদ্ম সেতুতে বসলো ২৪তম স্প্যান: ৩৬০০ মিটার দৃশ্যমান খালেদা জিয়াকে কারাবন্দী করে রাখায় তাঁর প্রাণহাণীর আশংকা দেখা দিয়েছে: সাবেক এমপি অধ্যক্ষ জ্যোতি সিড্যার আলাউদ্দীন আমীন শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান হিসেবে আধুনিক বাংলার সম্মাননা পেলেন
বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের মহাসচিব ড. সাইফুল গ্রেফতার

বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের মহাসচিব ড. সাইফুল গ্রেফতার

 

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি:

অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের মহাসচিব ড. সাইফুল ইসলাম দিলদারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে উপজেলার দাউদপুর পুটিনা থেকে আটকের পর বুধবার সকালে একটি মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়েছে রূপগঞ্জ থানা পুলিশ।

উপজেলার দাউদপুর ইউনিয়নের পুটিনা এলাকার আইআরডি নামক একটি এনজিওর গ্রাহকদের প্রায় ৪৩ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তাকে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। তিনি এনজিওটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং উপজেলার পুটিনা এলাকার মৃত ফকরুল ভূইয়ার ছেলে।

রূপগঞ্জ থানার পরিদর্শক (অপারেশন) রফিকুল হক মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে জানান, দাউদপুর ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের কাছ থেকে অধিক মুনাফার প্রলোভন দেখিয়ে আইআরডি নামক একটি এনজিও খুলে প্রায় ২ কোটি টাকা আমানত সংগ্রহ করা হয়। এরপর কয়েক মাস টাকার লভ্যাংশ গ্রাহদের দেয়া হলেও হঠাৎ এনজিও বন্ধ করে দিয়ে টাকা আত্মসাৎ করেন এনজিওটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. সাইফুল ইসলাম দিলদার। গ্রাহকরা প্রায় এক বছর ধরে তাদের পাওনা টাকা ফেরতের জন্য বিভিন্ন স্থানে ঘুরছিলেন। সাইফুল ইসলাম দিলদারের কাছে চাইতে গেলে তিনি পুলিশ দিয়ে হয়রানি করতেন বলেও জানান গ্রাহকরা।

গত মঙ্গলবার বিকেলে সাইফুল ইসলাম দিলদার নিজ বাড়ি দাউদপুর পুটিনায় আসলে সব গ্রাহক একত্রিত হয়ে তার বাড়ি ঘেরাও করে তাকে অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে রূপগঞ্জ থানা পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। ১৫ জন গ্রাহকের ৪৩ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগের ভিত্তিতে তাদের পক্ষে স্থানীয় মাহফুজা বেগম নামে এক নারী রূপগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন। বুধবার সকালে এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে পুলিশ ড. সাইফুল ইসলাম দিলদারকে নারায়গঞ্জ আদালতে পাঠায়।

সংবাদটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 Lalsabujnews24.Com
Desing & Developed BY Kazi Jahir Uddin Titas::01713478536